Published on Feb 09, 2024 Updated 0 Hours ago

গ্লোবাল নর্থ সবুজ শক্তি শিল্পে অভ্যন্তরীণ বিনিয়োগের সুবিধার্থে নানা বাধা তৈরি করেছে, এবং সেগুলি গ্লোবাল সাউথের সবুজ পণ্য ও পরিষেবাগুলির উৎপাদন ও রপ্তানি হ্রাস করবে।

গ্লোবাল নর্থে সবুজ সুরক্ষাবাদ: গ্লোবাল সাউথের উপর প্রভাব

জীবাশ্ম জ্বালানি ও কয়লা চালিত গ্রিড–ভিত্তিক বিদ্যুতের জন্য গভীরে প্রোথিত ভর্তুকি, মূলধনের ব্যয়, দুর্বল বিদ্যুৎ গ্রিড, নিয়ামক বাধা, এবং খনিজ ও জমির প্রাপ্যতার প্রতিবন্ধকতাগুলি প্রায়শই গ্লোবাল সাউথ–এ নবায়নযোগ্য শক্তি (আরই) গ্রহণের ক্ষেত্রে বাধা হিসাবে চিহ্নিত হয়। তা ছাড়া কিছু শুল্ক বাধা (টিবি) ও অ–শুল্ক বাধা (‌নন–ট্যারিফ ব্যারিয়ার বা এনটিবি),‌ যা বর্তমানে গ্লোবাল নর্থে বিকশিত আরই ও অন্যান্য সবুজ পণ্যের আমদানি কমায়, তা গ্লোবাল সাউথের আরই বিকশিত করার ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য বাধা।

অতীতে
গ্লোবাল সাউথের দেশগুলি তাদের নতুন শিল্পকে রক্ষা ও লালন করার জন্য টিবি ও এনটিবি আরোপ করেছিল । গ্লোবাল নর্থের দেশগুলো পাল্টা জবাব দেয় আন্তর্জাতিক মুদ্রা ভান্ডার (আইএমএফ), বিশ্ব ব্যাঙ্ক (ডব্লিউবি) ও বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার (ডব্লিউটিও) মাধ্যমে প্রায়শই   নব্য–উদারবাদী (‌নিও–লিবারেল)‌ অ্যাজেন্ডা গ্রহণের জন্য চাপ দিয়ে। আইএমএফ ও বিশ্ব ব্যাঙ্ক তাদের ঋণের সঙ্গে শর্ত যুক্ত করে প্রাপক দেশগুলিকে নয়া–উদারনীতি গ্রহণ করতে বাধ্য করেছে। ডব্লিউটিও এমন ব্যবসায়িক নিয়ম তৈরি করে এতে অবদান রেখেছিল যা গ্লোবাল নর্থ যেখানে শক্তিশালী সেখানে মুক্ত বাণিজ্যের পক্ষে ছিল, কিন্তু কৃষি ও বস্ত্রের ক্ষেত্রের মতো যেখানে তারা দুর্বল সেখানে নয়।

আজ, অবস্থান বিপরীত।
সবুজ শিল্প রক্ষার জন্য গ্লোবাল নর্থ কর্তৃক আরোপিত   টিবি ও এনটিবিগুলি দরিদ্র দেশগুলির দ্বারা আরোপের তুলনায় অনেক বেশি। গ্লোবাল নর্থ–এর তৈরি করা বাধাগুলি সবুজ শক্তি শিল্পে অভ্যন্তরীণ বিনিয়োগের সুবিধার্থে তৈরি হয়েছে, এবং সেগুলি গ্লোবাল সাউথের সবুজ পণ্য ও পরিষেবাগুলির উৎপাদন ও রপ্তানি হ্রাস করবে। এর ফলে গ্লোবাল ডিকার্বনাইজেশন–এর গতি কমে যাবে।

সবুজ ফিতা

 

মুক্ত বাণিজ্য রক্ষার বিধানগুলি জলবায়ু কাঠামোতে অস্পষ্ট। ইউএনএফসিসিসি–র ৩.৫ অনুচ্ছেদ কিয়োটো প্রোটোকলের ২.৩ অনুচ্ছেদ অনুসারে, জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য গৃহীত পদক্ষেপগুলির স্বেচ্ছাচারী বা অন্যায্য বৈষম্য বা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের উপর ছদ্মবেশী বিধিনিষেধ তৈরি করা উচিত নয়, এবং আন্তর্জাতিক বাণিজ্য–সহ সব ক্ষেত্রে প্রতিকূল প্রভাবগুলি হ্রাস করার জন্য প্রয়োগ করা উচিত, যার মধ্যে বাণিজ্য এবং অন্যান্য পক্ষের উপর সামাজিক, পরিবেশগত ও অর্থনৈতিক প্রভাব অন্তর্ভুক্ত। জলবায়ু ও পরিবেশের প্রেক্ষাপটে, ডব্লিউটিও মুক্ত বাণিজ্যকে উন্নত করার জন্য তার নিজের আদেশের বিরোধিতা করে বলেছে যে সদস্যরা পরিবেশ রক্ষা ও স্থিতিশীল উন্নয়ন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বাণিজ্য–সম্পর্কিত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারে। এই বিধানগুলিতে গ্রথিত অস্পষ্টতা গ্লোবাল নর্থকে জলবায়ু সক্রিয়তার স্বার্থে অনুমিতভাবে আরই ও অন্য স্বল্প–কার্বন পণ্যগুলির অভ্যন্তরীণ উৎপাদন রক্ষা করা এবং ভর্তুকি দেওয়ার অনুমতি দেয়।


গ্লোবাল নর্থের প্রথম এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সুরক্ষাবাদী পরিমাপ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে এসেছে। দেশটি
মূল্যস্ফীতি হ্রাস আইন (আইআরএ) পাস করেছে, এবং মার্কিন ক্লিন–টেক উৎপাদনকে উৎসাহিত করার জন্য ৩৬০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বেশি ট্যাক্স ক্রেডিট, অনুদান, ভর্তুকি ও ঋণ প্রদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। আইআরএ কার্যকরভাবে একটি অন্তর্নিহিত ভর্তুকি, যা অভ্যন্তরীণ উৎপাদনকে উৎসাহিত করতে একটি এনটিবি–র সমতুল্য। সবুজ অর্থনীতিতে চিনের আধিপত্যকে দুর্বল করার জন্য মার্কিন কৌশলের অংশ হিসেবে আইআরএ তৈরি করা হয়েছে। শুধুমাত্র তার বাণিজ্য অংশীদারেরা, বা যে সংস্থাগুলি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে যন্ত্রাংশ ও উপকরণগুলি নেবে, তারা আইআরএ থেকে উপকৃত হতে পারে। তবে এ থেকে ইইউ (ইউরোপীয় ইউনিয়ন) ও জাপান বাদ থাকবে, কারণ তাদের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি নেই৷


যা মুক্ত বাণিজ্যে বাধা ছিল এমন পূর্ববর্তী মার্কিন হস্তক্ষেপগুলির মধ্যে আছে আগস্ট ২০২২–এর
চিপস অ্যান্ড সায়েন্স অ্যাক্ট। এর লক্ষ্য মার্কিন ম্যানুফ্যাকচারিং, সরবরাহ শৃঙ্খল ও জাতীয় নিরাপত্তাকে শক্তিশালী করা, এবং সেইসঙ্গে গবেষণা ও উন্নয়ন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি এবং ভবিষ্যতের কর্মীবাহিনীতে বিনিয়োগ করা, যাতে ন্যানোটেকনোলজি, ক্লিন এনার্জি, কোয়ান্টাম কম্পিউটিং ও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা–সহ আগামী দিনের শিল্পে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র শীর্ষস্থান দখলে রাখতে পারে। ২০২২ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ক্লিন এনার্জি প্রযুক্তির অভ্যন্তরীণ উৎপাদনকে ত্বরান্বিত করতে প্রতিরক্ষা উৎপাদন আইন (ডিপিএ) ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে। পাঁচটি মূল শক্তি প্রযুক্তি যা এই আইনের আওতায় রয়েছে তা হল (১) সৌর, (২) ট্রান্সফরমার ও বৈদ্যুতিক গ্রিড উপাদান, (৩) হিট পাম্প, (৪) ইনসুলেশন এবং (৫) ইলেক্ট্রোলাইজার, জ্বালানি কোষ ও প্ল্যাটিনাম গ্রুপ ধাতু। এই হস্তক্ষেপগুলি সবুজ পণ্য আমদানির জন্য কার্যকরভাবে এনটিবি।

 

আইআরএ–এর প্রতিক্রিয়াগুলির মধ্যে রয়েছে ইইউ–এর গ্রিন ডিল ইন্ডাস্ট্রিয়াল প্ল্যান, যা ইউরোপের নেট–জিরো শিল্পের প্রতিযোগিতা বাড়ানো এবং জলবায়ু নিরপেক্ষতার দ্রুত রূপান্তরকে সমর্থন করবে। এটি নেট–জিরো ইন্ডাস্ট্রি অ্যাক্টের প্রস্তাব করেছে এমন একটি নিয়ামক কাঠামো তৈরি করতে যা নেট–জিরো শিল্প ক্ষমতা দ্রুত স্থাপন করা, সরলীকৃত ও দ্রুত অনুমতি নিশ্চিত করা, ইউরোপীয় কৌশলগত প্রকল্পগুলিকে উন্নত করা, এবং একক বাজার জুড়ে প্রযুক্তির আয়তনগত প্রসারকে সমর্থন করার জন্য উপযুক্ত। এটি অতি–গুরুত্বপূর্ণ কাঁচামাল আইন এবং বিদ্যুতের বাজার নকশার একটি সংস্কারের কথাও‌ ঘোষণা করেছে।


ইইউ–এর
কার্বন বর্ডার অ্যাডজাস্টমেন্ট মেকানিজম (সিবিএএম) এমন আমদানিকৃত পণ্যের উপর শুল্ক প্রয়োগ করে যা অভ্যন্তরীণ ইইউ ইটিএস–সম্পর্কিত কার্বন মূল্যের সমান। এর লক্ষ্য ইইউ–তে উৎপাদিত পণ্য এবং ইইউ–তে আমদানি করা পণ্য উভয়ই যেন একই ধরনের কার্বন খরচ চাপের সম্মুখীন হয়। যাই হোক, ক্ষেত্রগুলিকে অবশ্যই ডিকার্বনাইজ করার জন্য সিবিএএম ফেজ–ইন পিরিয়ড ব্যবহার করতে হবে। গ্লোবাল সাউথ থেকে শক্তি প্রযুক্তি বা শিল্প পণ্য আমদানিতে সিবিএএম একটি উচ্চ এনটিবি তৈরি করে।


ইস্যু‌গুলি

আশ্চর্যজনক নয় যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের সবুজ ক্ষেত্রগুলি
আইআরএ, সিবিএএম এবং অন্যান্য সুরক্ষামূলক ব্যবস্থা থেকে উপকৃত হবে। কিন্তু অন্যান্য দেশের উৎপাদকেরা এত বেশি হারাবে যে তা বৈশ্বিক পর্যায়ে সবুজ পরিবর্তনকে ধীরগতি করে দিতে পারে। ৮০–৯০ শতাংশ লো–কার্বন আইআরএ ও সিবিএএম বাণিজ্যের আওতায় পড়বে। পরিহাসের কথা হল, টিবি ও এনটিবিগুলি কার্বন–নিবিড় পণ্যগুলির জন্য কম এবং কম–কার্বন পণ্যগুলির জন্য উচ্চ। এবং কম–কার্বন পণ্যগুলির জন্য টিবিগুলি জীবাশ্ম জ্বালানি খরচ ভর্তুকির থেকে বেশি। যে সব এনটিবি গ্লোবাল নর্থ তৈরি করেছে সেগুলির প্রভাব বাণিজ্য হ্রাস ও নির্গমন বৃদ্ধি সংক্রান্ত টিবিগুলির দ্বিগুণ। সৌর পিভি (ফটোভোলটাইক)–র টিবি ও এনটিবিগুলির উপর অধ্যয়নগুলি ডিকার্বনাইজেশনের উপর তাদের নেতিবাচক প্রভাবকে চিত্রিত করে।


২০২১ সালে তৈরি সোলার পিভি–র অর্ধেকের লেনদেন হয়েছিল, এবং তা ছিল ২০১০ সালের থেকে ৪ গুণেরও বেশি। ২০১১ সালে সোলার পিভিতে অ্যান্টিডাম্পিং, কাউন্টারভেলিং ও আমদানি শুল্কের সংখ্যা মাত্র ১টি আমদানি কর বেড়ে ২০২১ সালে হয়েছে ১৬। এ ছাড়া আরও অনেক টিবি ও এনটিবি বসানোর কথা বিবেচনা করা হচ্ছে। ২০২১ সালে বিশ্বব্যাপী সৌর পিভি–সম্পর্কিত বাণিজ্য ২০২০ সালের ৪০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার থেকে ৭০ শতাংশ বেড়েছে। সৌর পিভিতে মোটামুটি ০.১৩ GtCO2e (গিগা টন কার্বন ডাই অক্সাইড সমতুল্য) সংবিদ্ধ থাকে। বাণিজ্যের আওতায় আসা সৌর কোষ ও মডিউল
৩০ বছরের জীবনকালে ১.৬ GtCO2e পর্যন্ত নেট নির্গমন হ্রাস করে। সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদন বৃদ্ধির ফলে  ২০১৭ থেকে ২০৬০–এর মধ্যে ‘‌স্বাভাবিক ব্যবসায়িক’‌ পরিস্থিতিতে ৫০–১৮০ GtCO2e পরিসরের নির্গমন হ্রাস পাবে বলে আশা করা হচ্ছে। স্থিতাবস্থার অর্ধেক বাণিজ্য বাধা অপসারণ করলে পিভি অ্যাপ্লিকেশনগুলি ৭ শতাংশের বেশি বৃদ্ধি পাবে, এবং ক্রমবর্ধমান নেট কার্বন নির্গমন হ্রাসের সম্ভাবনা ৪–১২ GTCO2e উন্নত হবে। অতিরিক্ত বাণিজ্য বাধা আরোপের ফলে বিশ্বব্যাপী পিভি অ্যাপ্লিকেশনগুলি ১.৬ শতাংশ থেকে ৩.৫ শতাংশ হ্রাস পাবে, এবং ২০৬০ সালের মধ্যে ৩-৪ GtCO2e পর্যন্ত ক্রমবর্ধমান নেট কার্বন নির্গমন প্রশমন সম্ভাবনা নষ্ট হবে

 

সৌর পিভি এবং অন্যান্য সবুজ প্রযুক্তির পরিপ্রেক্ষিতে গ্লোবাল নর্থ কর্তৃক প্রয়োগ করা ‌সুরক্ষাবাদী ব্যবস্থা পরিচ্ছন্ন প্রযুক্তি ও উৎপাদনে বিনিয়োগ আকৃষ্ট করার জন্য একটি বৈশ্বিক ভর্তুকি প্রতিযোগিতাকে উস্কে দিতে পারে। যেখানে গ্লোবাল সাউথের সরকারগুলির কাছে গ্লোবাল নর্থের দেশগুলির তুলনায় জাতীয় ডিকার্বনাইজেশন প্রচেষ্টাকে অর্থায়নের জন্য প্রয়োজনীয় রাষ্ট্রীয় সম্পদ সংগ্রহের একটি ভগ্নাংশমাত্র রয়েছে, সেখানে এই পথটি সমস্যাসঙ্কুল ৷ গ্লোবাল সাউথের রাষ্ট্রীয় সম্পদের ঘাটতি দ্বারা চিহ্নিত অর্থনীতিগুলিকে পরিচ্ছন্ন প্রযুক্তির উদ্ভাবন ও শিল্প ডিকার্বনাইজেশনের ভর্তুকি প্রতিযোগিতা কঠোরভাবে আঘাত করবে। বাণিজ্য ও বিনিয়োগ নেতিবাচকভাবে সিবিএএম এবং অন্যান্য এমন সীমান্ত ব্যবস্থা দ্বারা প্রভাবিত হতে পারে যা উৎপত্তিস্থল ও বাণিজ্য পণ্যের কার্বন তীব্রতার উপর ভিত্তি করে আমদানি সীমাবদ্ধ করে, যার ফলে আরও বাজার বিভাজন হয়। গ্লোবাল নর্থের সুরক্ষাবাদী ব্যবস্থা ১৮৫০ সাল থেকে ৯০ শতাংশের বেশি কার্বন নির্গমনের জন্য দায়ী, এবং এখন তাদের তৎপরতা এই বার্তার সংকেত দিচ্ছে যে ধনী দেশগুলি যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ডিকার্বনিজিংয়ের ক্ষেত্রে যতটা সম্ভব অভ্যন্তরীণ শিল্প গড়ে তুলতে চাইছে। গ্লোবাল নর্থের টিবি ও এনটিবিগুলি সবুজ কেনার (গ্লোবাল সাউথ থেকে) পরিবর্তে স্থানীয় কেনাকে অগ্রাধিকার দিচ্ছে, যা গ্লোবাল সাউথের ডিকার্বনাইজেশনের গতি ধীরে করে দেবে। এর অর্থ হল গ্লোবাল ডিকার্বনাইজেশনের গতি  ধীরে হয়ে যাবে, কারণ গ্লোবাল সাউথ আজ ৬০ শতাংশের বেশি নির্গমনের জন্য দায়ী।



সূত্র: ব্রুগাল

The views expressed above belong to the author(s). ORF research and analyses now available on Telegram! Click here to access our curated content — blogs, longforms and interviews.

Authors

Vinod Kumar Tomar

Vinod Kumar Tomar

Vinod Kumar, Assistant Manager, Energy and Climate Change Content Development of the Energy News Monitor Energy and Climate Change. Member of the Energy News Monitor production ...

Read More +
Lydia Powell

Lydia Powell

Ms Powell has been with the ORF Centre for Resources Management for over eight years working on policy issues in Energy and Climate Change. Her ...

Read More +
Akhilesh Sati

Akhilesh Sati

Akhilesh Sati is a Programme Manager working under ORFs Energy Initiative for more than fifteen years. With Statistics as academic background his core area of ...

Read More +